নারীর সুরক্ষায় সকলকে কাজ করতে হবে – বিএমপি কমিশনার

অক্টোবর ১৭ ২০২০, ১৭:০৪

Sharing is caring!

বরিশাল রিপোর্ট : বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বলেছেন, নারীর প্রতি সহিংসতা, নারীর প্রতি উৎপীরণ নারীর প্রতি নিপীরণ, নারীকে ধর্ষন এবং নারীর জন্য একটি অনিরাপদ জায়গা তৈরি করে ফেলেছে সমাজের বিভিন্ন স্তরে, বিভিন্ন জায়গায়। যেটি আজকে সামাজিক পতন হিসেবে দেখা দিয়েছে। সেটা থেকে আমরা সবাই মিলে কিভাবে নিস্কৃতি পেতে পারি, কিভাবে এখান থেকে উত্তরণ ঘটতে পারে সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। কিভাবে নারীরা আমাদের মেয়েরা, মায়েরা বাসায়, সমাজে, স্কুলে, কলেজে, কর্মস্থলে অর্থাৎ সর্বত্র নিরাপদ বোধ করেন, স্বাধীনভাবে চলতে পারেন এবং সে যেন সুরক্ষিত থাকেন সেই প্রত্যাশা নিয়ে কাজ করতে হবে।

শনিবার দুপুরে বরিশাল নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।

এসময় পুলিশ কমিশনার আরো বলেন, নারীর প্রতি সংহিসতা-নির্যাতন প্রতিরোধ করতে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ জিড়ো টলারেন্স নিয়ে ডেডিকেটেট ওয়েতে কাজ করছি। ‍শুধু পুলিশ বিভাগ নয়, সরকারের পক্ষ থেকে এ ধরণের কর্মকান্ডে কোন ছাড় দেয়া হচ্ছে না। আইনকে সংস্কার করে ধর্ষনের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নারী, শিশু, প্রতিবন্ধী ও বয়স্কদের জন্য প্রতিটি থানায় আলাদা ডেস্ক করা হয়েছে। কিছু অফিসার শুধু তাদের সেবা দেয়ার জন্যই নিয়োজিত থাকেন থানাগুলোতে, যাতে সময়ক্ষেপন না হয়। নারীবান্ধব পুলিশিংয়ের জন্য আমাদের আলাদা ব্যবস্থা রয়েছে। যেখানে আলাদা ডেস্ক নিয়ে নারী পুলিশের সদস্যরা বসে থাকেন।

তিনি বলেন, পুলিশী সেবাগুলো নেয়ার জন্য জনগনের সাথে সেবা প্রদানকারীদের যেন কোন গ্যাপ না থাকে, কোন আস্থার সংকট না থাকে।

সমাবেশে অন্য বক্তারা বলেন, এই সমাবেশের মধ্যদিয়ে তারা জানান দিতে চান, নারীর প্রতি সহিংসতা বা ধর্ষকদের কোন মতেই ছাড় নয়। এই ধরণের অপরাধ প্রবণতা কমিয়ে আনতে বিট পুলিশিং ব্যবস্থা কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারবে। তাদেরকে আরো সোচ্চার হয়ে পুলিশকে সহায়তা করার আহবান জানান বক্তারা।

সমাবেশ থেকে ধর্ষণ ও নির্যাতন প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানানো হয়।

বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের অংশগ্রহনে সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পিপি অ্যাডভোকেট এ কে এম জাহাঙ্গীর, বিএম কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক গোলাম কিবরিয়া, সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অ্যাডভোকেট এস এম ইকবাল, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ক্যামেলিয়া খান প্রমুখ।


লিড আরও

shares